রাঙামাটিতে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী কর্তৃক উপজাতি ব্যক্তিকে অপহরণের অভিযোগ - Southeast Asia Journal

রাঙামাটিতে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী কর্তৃক উপজাতি ব্যক্তিকে অপহরণের অভিযোগ

“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রতিনিয়ত বেপরোয়া হয়ে ওঠছে উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। সম্প্রতি রাঙামাটি পার্বত্য জেলার রাজস্থলীতে গ্রাম প্রধান (কার্বারি) পাত্তর মনি চাকমাকে গুলি করে হত্যার রেশ কাটতে না কাটতে আবারো জেলার রাজস্থলীতে আরেকজনকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা।

গত ১৮ জুন উপজাতি সন্ত্রাসীগোষ্ঠী কর্তৃক রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার গাইন্দ্যা ইউনিয়নের চিংক্ষ্যং মারমা পাড়া থেকে এক নিরীহ উপজাতি গ্রামবাসী অপহরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে পরিবার থেকে।

অপহরণের শিকার ব্যক্তি হলেন বিনলাল চাকমা (৫৫)। তিনি চিংক্ষ্যং মারমা পাড়ার লক্ষী মোহন চাকমার ছেলে। অনেক আগে তার বাড়ি ছিল রাজস্থলীর সীমান্তবর্তী বান্দরবানের জামছড়ি ইউনিয়নের ক্রাইক্ষ্যং চাকমা পাড়ায়। চিংক্ষ্যং মারমা পাড়ার এক মারমা মহিলাকে বিয়ে করে দীর্ঘ দিন ধরে তিনি সেখানে বসবাস করছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৮ শুক্রবার ভোরের দিকে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন জেএসএস এর একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী হঠাৎ চিংক্ষ্যং মারমা পাড়ায় এসে নিজ বাড়ি থেকে বিনলাল চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, নিজেদের সন্ত্রাসী তৎপরতা আড়াল করতে এবং চাঁদাবাজি ও পাত্তর মনি কার্বারী হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি দামাচাপা দিতে জেএসএস সদস্যরা বিনলাল চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। নিজেরা অপহরণ করে এখন প্রতিপক্ষকে গায়েল করার অপচেষ্টা করছে।

উল্লেখ্য, গত ১৩ জুন রাত ৯ টায় জুরাছড়ি লুলাংছড়ির কার্বারী পাত্তর মনি চাকমাকে নিজ বাড়ির সামনে গুলি করে হত্যা করে পালিয়ে যায় জেএসএস সন্ত্রাসীরা।