অসহায়দের মাঝে ৪০ বিজিবির বিনামুল্যে স্বাস্থ্য সেবা ও শীতবস্ত্র বিতরণ - Southeast Asia Journal

অসহায়দের মাঝে ৪০ বিজিবির বিনামুল্যে স্বাস্থ্য সেবা ও শীতবস্ত্র বিতরণ

অসহায়দের মাঝে ৪০ বিজিবির বিনামুল্যে স্বাস্থ্য সেবা ও শীতবস্ত্র বিতরণ
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

পাহাড়ে শান্তি, সম্প্রীতি ও উন্নয়নের লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি। এরি ধারাবাহিকতায় সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি বিজিবির মানব কল্যাণ কাজের অংশ হিসেবে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার সীমান্ত রক্ষায় নিয়োজিত খেদাছড়া ব্যাটালিয়ন পলাশপুর জোনের (৪০ বিজিবি) উদ্যোগে প্রত্যন্ত অঞ্চলের চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত হত-দরিদ্র ও অসহায় শতাধিক পাহাড়ি-বাঙ্গালীর মাঝে বিনামুল্যে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান এবং শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

আজ ১৩ ফেব্রুয়ারী (মঙ্গলবার) দিনব্যাপী পলাশপুর জোন আওতাধীন দুর্গম বড়নাল বিওপিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রায় শতাধিক সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা, ঔষধ ও কম্বল বিতরণ করেন পলাশপুর জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ফারাহ্ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ। স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেন পলাশপুর জোনের মেডিক্যাল অফিসার মেজর মো: তৌহিদ মোস্তফা।

পলাশপুর জোনের মেডিক্যাল অফিসার মেজর মো: তৌহিদ মোস্তফা বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাস করার কারনে অনেক হত-দরিদ্র মানুষ সরকারি চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত। তাই মানবিক কারণে আমরা তাদের অত্যধিক প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি। ভবিষ্যতেও এধারা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। এসময় পলাশপুর জোনের বিজিবির বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তা ও সুবিধাভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।

ঠাণ্ডা বাতাসের দাপট আর মাঝে মাঝে অসময়ের বৃষ্টির কারনে শীত জেঁকে ধরেছে শীতার্তদেরকে। হিম হিম ঠাণ্ডা আর কুয়াশায় নাকাল জনজীবন। শীতের এই তীব্রতা বেশি কাবু করে নিম্নআয়ের মানুষকে। শীতার্ত অসহায় ও দুস্থ্য মানুষের উষ্ণতা দিতে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে পাশে দাঁড়াল ৪০ বিজিবি। পলাশপুর জোন আওতাধীন বড়নাল বিওপি এলাকায় শতাধিক পাহাড়ি-বাঙ্গালীদের মাঝে কম্বল বিতরন করেন পলাশপুর জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ফারাহ্ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ।

শীতবস্ত্র বিতরণকালে অসহায় মানুষের উদ্দেশে জোন অধিনায়ক বলেন, আমরা আপনাদের ঘরের সন্তান। এই শীতে আপনারা কষ্ট করবেন, তা মেনে নেয়া যায় না। আপনাদের প্রতি বুকভরা ভালোবাসা, শ্রদ্ধাবোধ, সম্মান ও সহমর্মিতা নিয়ে আমরা এখানে এসেছি, পরিবারের সদস্য হিসেবে আপনাদের পাশে দাঁড়াতে। এ সময় তিনি মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়াতে সবাইকে আহ্বান জানান। সীমান্ত অপরাধ সহ যে কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড কারও চোখে পড়লে বিজিবিকে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

পলাশপুর জোনের মানবিক কর্মকান্ডকে সাধুবাদ জানান স্থানীয়রা। ৪০ বিজিবি কর্তৃক এ ধরনের মানবেতর কার্যক্রম ইতিবাচক সাড়া ফেলে স্থানীয় জনসাধারণের মাঝে, বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল ও চাঁদর পেয়ে আবেগাআপ্লূত হয়ে ৪০ বিজিবির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন সুবিধাভোগীরা।

  • পার্বত্য চট্টগ্রামের অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।