খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ - Southeast Asia Journal

খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ

খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

খাগড়াছড়ির রামগড়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এক বালু ব্যবসায়ীকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় অবৈধভাবে উত্তোলিত ৫ হাজার ঘনফুট বালু, বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ২টি মেশিন, পরিবহনের ব্যবহৃত ১টি ট্রাক, ১টি স্কেভেটর ও পাইপ জব্দ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বেলা ২টা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার ১ নং রামগড় ইউনিয়নের দুর্গম হাতিরখেদা এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মানস চন্দ্র দাস।

এ সময় রামগড় পৌরসভা এলাকার এরশাদ উল্ল্যাহর ছেলে মোঃ ওমর ফারুক নামের এক বালু ব্যবসায়ীকে তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে ৪ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। অর্থদণ্ডের অর্থ নগদ পরিশোধ করায় আসামিকে সতর্ক করে তৎক্ষণাত খালাস দেওয়া হয়। এছাড়া ওই স্থান থেকে উত্তোলিত ৫ হাজার ঘনফুট জব্দকৃত বালু ও এস্কেবেটর জব্দ করে করে স্থানীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় রাখা হয়, যা পরবর্তীতে নিলামে বিক্রি করা হবে।

খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ খাগড়াছড়িতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, ট্রাকসহ সরঞ্জাম জব্দ

এছাড়া জব্দকৃত পাইপসহ বালু উত্তোলনের মেশিন দুটি এবং বালু পরিবহনের জন্য ব্যবহৃত ট্রাকটি রামগড় থানার সংশ্লিষ্ট উপ-পরিদর্শকের জিম্মায় দেওয়া হয়।

অবৈধ বালু কারবারিদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মানস চন্দ্র দাস জানান, বেশ কিছুদিন ধরে একটি মহল অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে ব্যবসা করে আসছিলেন- এমন অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযান চালিয়ে তাঁর বালু উত্তোলন ও পরিবহনের সকল যন্ত্র জব্দ করা হয়। অপরাধ স্বীকার করায় তাঁকে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনে নগদ তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, উপজেলার কোথাও অবৈধ উপায়ে খননযন্ত্রের সাহায্যে মাটি বা বালু উত্তোলন করে কেউ বিক্রি করতে পারবেন না। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এ ধরনের অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।