মানসিক ভারসাম্যহীন মনজুরুলকে বাবার হাতে তুলে দিল বিজিবি - Southeast Asia Journal

মানসিক ভারসাম্যহীন মনজুরুলকে বাবার হাতে তুলে দিল বিজিবি

মানসিক ভারসাম্যহীন মনজুরুলকে বাবার হাতে তুলে দিল বিজিবি
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

এক বছর আগে ময়মনসিংহ থেকে নিখোঁজ হওয়া মানসিক ভারসাম্যহীন মনজুরুলকে বিএসএফের সহায়তায় ভারতের মুর্শিদাবাদ থেকে উদ্ধার করে বাবার হাতে তুলে দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি। এত দিন পর হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে খুঁজে পেয়ে বাবা হালিম উদ্দিন কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন বিজিবি সদস্যদের।

গত বছরের ২৭ রমজান ময়মনসিংহের ধোবাউরা এলাকা থেকে নিখোঁজ হন মানসিক ভারসাম্যহীন যুবক মনজুরুল হক। এরপর থেকে পরিবারের সদস্যরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কোনো খোঁজখবর না পাওয়ায় আশা ছেড়ে দিয়েছিল। তবে কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মনজুরুলকে নিয়ে এক তথ্য প্রচার করা হয়।

সেখানে বলা হয়, মানসিক ভারসাম্যহীন এই যুবক ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার কাহারপাড়া এলাকায় অবস্থান করছে। এলাকাবাসীর মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারে মনজুরুলের বাবা হালিম উদ্দিনের। এরপর বিজিবির সহযোগিতা চাইলে এগিয়ে আসেন রাজশাহীর ১নং ব্যাটেলিয়ানের অধিনায়ক লে. কর্নেল মতিউল ইসলাম মণ্ডল।

বিএসএফের সহযোগিতায় শেষ পর্যন্ত সীমান্ত পেরিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলে মনজুরুল হককে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে বাবার হাতে তুলে দেন তিনি। প্রায় এক বছর পর ছেলেকে পেয়ে খুশি বাবা হালিম উদ্দিন।

বিজিবির ১নং ব্যাটেলিয়ানের অধিনায়ক লে. কর্নেল মতিউল ইসলাম মণ্ডল বলেন, ‘আরেকটি ব্যাটালিয়নের মাধ্যমে আমি জানতে পারি মানসিক ভারসাম্যহীন এই ছেলেটি আমাদের দায়িত্বপূর্ণ এলাকার বিপরীতে ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার কাহারপাড়া এলাকায় অবস্থান করছে। এরপর বিএসএফের সহযোগিতায় মনজুরুলকে উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী সীমান্তে দুদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে পতাকা বৈঠক শেষে দেশে ফিরিয়ে আনা হয় তাকে।

তবে মনজুরুল কোন সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করেছে তা নিশ্চিতভাবে বলতে পারেননি তিনি।

দুই ভাইয়ের মধ্যে ছোট মনজুরুল হক। আর বাবা হালিম উদ্দিনের বাড়ি ময়মনসিংহের হাজংপাড়া গ্রামে।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।