ঢাকায় ব্রুনেইয়ের সুলতান, লালগালিচা সংবর্ধনা - Southeast Asia Journal

ঢাকায় ব্রুনেইয়ের সুলতান, লালগালিচা সংবর্ধনা

“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

ব্রুনেইয়ের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়াহ মুইজ্জাদ্দিন ওয়াদ্দৌলাহ তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে আজ শনিবার ঢাকায় এসেছেন। বিমানবন্দরে তাঁকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

সুলতান ও তাঁর সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিশেষ একটি ভিভিআইপি বিমান (রয়েল ব্রুনেই) বেলা ২টা ২৪ মিনিটে (বাংলাদেশ সময়) হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বিমানবন্দরে ব্রুনেইয়ের সুলতানকে স্বাগত জানান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন মন্ত্রিসভার জ্যেষ্ঠ সদস্য, উচ্চপদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা।

ব্রুনেইয়ের রাজকীয় পরিবারের সদস্য, সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এবং উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তারা সুলতানের সফরসঙ্গী হিসেবে ঢাকায় এসেছেন।

করোনা মহামারির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ব্রুনেইয়ের সুলতানকে ফুলের তোড়া দিয়ে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান। সফররত প্রতিনিধিদলের সদস্যরাও এই অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন।

অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে বিমানবন্দরে সুলতানকে বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর চৌকস দল ২১ বার তোপধ্বনিসহ সুলতানকে গার্ড অব অনার প্রদান করে।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে এই প্রথমবার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বোর্নিও দ্বীপের উত্তর উপকূলে স্বাধীন ইসলামি সালতা ব্রুনেইয়ের সুলতান ঢাকা সফরে এলেন।

বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানের পর সুলতান রাজধানীর উপকণ্ঠে সাভারে জাতীয় শহীদ স্মৃতিসৌধে যান।

রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকারপ্রধান সুলতান সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী স্বাধীনতাযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। সেখানে তিনি একটি চারা গাছ রোপণ এবং দর্শনার্থী বইয়ে সই করেন।

ব্রুনেইয়ের সুলতান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদা বৈঠক করবেন।