রিমান্ড শেষে কেএনএফের ২ সদস্য কারাগারে

রিমান্ড শেষে কেএনএফের ২ সদস্য কারাগারে

রিমান্ড শেষে কেএনএফের ২ সদস্য কারাগারে
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

বান্দরবান জেলায় সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল কুকি চীন ন্যাশনাল ফন্ট (কেএনএফ) এর প্রধান নামাম বম ও তার সশস্ত্র সদস্যদের ধরতে চালানো অভিযানে গ্রেপ্তার হওয়া সন্দেহভাজন দুই সদস্যকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়।

এদিন দুপুরে কঠোর পুলিশি নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বান্দরবানের থানচি থানার মামলায় অভিযুক্ত আসেলন চেও বম (১৯) ও ভাননুন নুয়াম বমকে (২৩) বান্দরবান চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয়।

পরে আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আমলি আদালত) মো. নুরুল হকের আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার আইও পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সমীর ভট্টাচার্য্য বাংলানিউজকে জানান, থানচি থানার মামলায় দুইজনকে দুই দিনের রিমান্ড শেষে দুপুরে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত আবার তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

তিনি আরও জানান, গত ২২ এপ্রিল আদালতের কাছে অভিযুক্তদের পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পরে ২৪ ও ২৫ এপ্রিল তাদের পুলিশের হেফাজতে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এদিকে দুর্গম পাহাড়ে চলছে যৌথবাহিনীর অভিযান। বান্দরবান জেলার রুমা, থানচি ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় এই অভিযান চলমান আছে। অভিযানে পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব আর সেনাবাহিনীর সদস্যরা একসঙ্গে কাজ করছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ এপ্রিল বান্দরবানের রুমায় সোনালী ব্যাংক ডাকাতি, ম্যানেজারকে অপহরণ, মসজিদে হামলা ও পুলিশের অস্ত্র লুটের ঘটনায় রুমা থানায় পাঁচটি মামলা দায়ের করা হয়। পরে ৩ এপ্রিল দুপুরে আবার বান্দরবানের থানচি উপজেলার সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনায় চারটি মামলা করা হয়। এরপর পুলিশ অভিযান শুরু করে এ পর্যন্ত মোট নয়টি মামলায় ৭৮ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করলে আদালত তাদের সবাইকে কারাগারে পাঠান।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।