এএপিটিসি’র ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ সমাপ্ত

এএপিটিসি’র ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ সমাপ্ত

এএপিটিসি’র ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ সমাপ্ত
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষা অপারেশনের প্রশিক্ষণ সম্পর্কিত সকল প্রতিষ্ঠানসমূহের অন্যতম বৃহৎ আন্তর্জাতিক সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন অব এশিয়া প্যাসিফিক পিস অপারেশন ট্রেনিং সেন্টার (এএপিটিসি) এর ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ এর সমাপনী অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার (৩০ মে) রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসস্থ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট)- এ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা, এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই সম্মেলনের সফল সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি তাঁর মূল্যবান বক্তব্যে বলেন, শান্তিরক্ষা অপারেশনের প্রশিক্ষণের সাথে জড়িত সংস্থাগুলোকে ২১ শতকের শান্তিরক্ষা অপারেশনের চ্যালেঞ্জগুলো সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, এই সম্মেলনে গবেষক, শিক্ষাবিদ, বিশেষজ্ঞদের বিভিন্ন উপস্থাপনা অংশগ্রহণকারীদের আরও প্রশিক্ষিত ও দক্ষ করে গড়ে তুলতে সহায়তা করবে ও শান্তিরক্ষা প্রশিক্ষণের সাথে জড়িত সংস্থাগুলোকে প্রশিক্ষণ কৌশল বিকাশে সহায়তা করবে। পাশাপাশি এই সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী সকল সদস্যদের সাথে মতবিনিময়, জ্ঞানের সমন্বয় সাধন এবং পারস্পরিক সমঝোতা বৃদ্ধিতে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে এবং ভবিষ্যতে সহযোগিতার ক্ষেত্রকে আরও বিস্তৃত করতে সহায়ক হবে। পরিশেষে এই অনুষ্ঠান সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য তিনি বিপসট, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং বার্ষিক সাধারণ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী সকল সদস্যদের আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এএপিটিসি’র ১২তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং ওয়ার্কশপ সমাপ্ত

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রথমবারের মতো এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে, যা আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বিপসট ও বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী তথা বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গৌরবের বিষয়। এএপিটিসি এর ১২তম বার্ষিক সাধারণ সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘নতুন প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে অসামঞ্জস্যপূর্ণ ঝুঁকি মোকাবিলায় বহুমাত্রিক শান্তিরক্ষা প্রশিক্ষণ মডিউলের উন্নতি সাধন’। সম্মেলনে শান্তিরক্ষা প্রশিক্ষণের ডিজিটাল রূপান্তর, প্রযুক্তির মাধ্যমে শান্তি অপারেশন প্রশিক্ষণের উদ্ভাবনী ধারণা, শান্তিরক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তথ্য সংগ্রহের উপর প্রশিক্ষণের প্রয়োজনীয়তা, প্রযুক্তির মাধ্যমে শান্তিরক্ষায় সক্ষমতা বৃদ্ধি, শান্তিরক্ষীদের কর্মক্ষমতা এবং জবাবদিহিতা ইত্যাদি বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলাপ-আলোচনা হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি লেফটেন্যান্ট জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস চৌধুরী, জেনারেল অফিসের কমান্ডিং আর্মি ট্রেনিং এন্ড ডকট্রিন কমান্ড উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া, বাংলাদেশে নিয়োজিত জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ, উর্ধ্বতন সামরিক, আধা-সামরিক ও অসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ; জাতিসংঘের অন্যান্য সংস্থার প্রধান/প্রতিনিধি; এএপিটিসি এর সদস্যভুক্ত ২৬টি দেশের প্রায় ৫০ জন বিদেশি প্রতিনিধি; স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য , গত ২৭ মে ২০২৪ হতে শুরু হওয়া এই সম্মেলনে প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্র তাদের প্রতিষ্ঠানের প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত বিভিন্ন ধারনা উপস্থাপন করেন। এছাড়াও, এই সম্মেলনে বিপসট, বাংলাদেশ কর্তৃক জাতিসংঘ শান্তি অভিযানের সিম্যুলেশন প্রশিক্ষণ, ‘United Nations Peace Operation Simulation Training (UNPOST)’ এর উপর বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এই UNPOST এর মাধ্যমে মিশনগামী কন্টিনজেন্টসমূহকে মিশনের বিভিন্ন কার্যক্রমের বাস্তবমূখী প্রশিক্ষণ প্রদান করা সম্ভব হবে এবং UNPOST এর উপর বিস্তারিত আলোচনা শেষে একটি শিক্ষণীয় মহড়ার আয়োজন করা হয়।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *