রাঙামাটিতে নিজেদের বিদ্যালয়ে সংবর্ধনা পেলেন সাফজয়ী ৫ ফুটবলার - Southeast Asia Journal

রাঙামাটিতে নিজেদের বিদ্যালয়ে সংবর্ধনা পেলেন সাফজয়ী ৫ ফুটবলার

“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার ঘাগড়া উচ্চবিদ্যালয় থেকে উঠে এসেছেন সাফজয়ী নারী ফুটবল দলের পাঁচ খেলোয়াড়। তাঁরা হলেন ঋতুপর্ণা চাকমা, মণিকা চাকমা, রুপনা চাকমা, আনাই মগিনি ও অনুচিং মগিনি। আজ বৃহস্পতিবার এ পাঁচ ফুটবলারকে সংবর্ধনা দিয়েছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

কৃতী এ পাঁচ ফুটবলারকে বরণ করে নিতে ঘাগড়া বাজার থেকে বিদ্যালয় পর্যন্ত শোভাযাত্রা আয়োজন করা হয়। এ সময় ব্যান্ড দলের বাদ্যের তালে তালে জাতীয় পতাকা হাতে উৎসব করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এ ছাড়া এলাকার সাধারণ মানুষও উৎসবে অংশ নেন।

বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, সকাল সাড়ে আটটার দিকে ঘাগড়া বাজারের চৌমুহনী এলাকায় পাঁচ ফুটবলারকে বরণ করা হয়। এরপর এক কিলোমিটার শোভাযাত্রা শেষে তাঁদের বিদ্যালয়ের মাঠে আনা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক চন্দ্রা দেওয়ান সেখানে ফুটবলারদের নিয়ে কেক কাটেন। এরপর বিদ্যালয়ে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

ফুটবলার মণিকা চাকমা বলেন, ‘ঘাগড়া উচ্চবিদ্যালয় আমাদের বিদ্যাপীঠ। এখন থেকে আমরা গড়ে উঠেছি। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষসহ যাঁরা আমাদের পেছনে শ্রম, সহযোগিতা ও উৎসাহ জুগিয়েছেন, তাঁদের আমরা আজীবন মনে রাখব।’

প্রধান শিক্ষক চন্দ্রা দেওয়ান বলেন, ‘আমরা ও আমাদের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আজ গর্বিত। এই ফুটবলারেরা আমাদের মুখ উজ্জ্বল করেছে। খুশিতে আমরা আবেগাপ্লুত হয়েছি। তাদের জন্য প্রার্থনা করি, তারা যেন আরও ভালো খেলে দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনতে পারে।’

গতকাল বুধবার রাত সাড়ে আটটার দিকে কাউখালী উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের মঘাছড়ি গ্রামে সাফজয়ী ফুটবলার ঋতুপর্ণা চাকমার বাড়িতে পৌঁছান এই পাঁচ ফুটবলার। সেখানে রাত্রিযাপন করেন তাঁরা। আজ বেলা দুইটায় রাঙামাটি জেলা পরিষদ ও জেলা প্রশাসন প্রশাসনের উদ্যোগে তাঁদের জন্য সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। এর আগে কাউখালীর ঘাগড়া বাজার থেকে খোলা ট্রাকে করে পাঁচ সাফজয়ীকে রাঙামাটি শহরে নেওয়া হবে।