মোদিকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করায় মালদ্বীপের তিন মন্ত্রী বরখাস্ত - Southeast Asia Journal

মোদিকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করায় মালদ্বীপের তিন মন্ত্রী বরখাস্ত

“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

লাক্ষাদ্বীপে ভ্রমণ নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘আপত্তিকর’ পোস্ট দেওয়ায় মালদ্বীপের তিন উপমন্ত্রীকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বরখাস্ত হওয়া তিনজন হচ্ছেন, তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মরিয়ম শিউনা, ক্ষমতায়ন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মালশা শরীফ এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ মাহজুম মজিদ। ভারতের গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে খবরটি দেওয়া হয়।

সম্প্রতি লাক্ষাদ্বীপে ঘুরতে গিয়ে কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন নরেন্দ্র মোদি। সেখানে মানুষকে ভ্রমণে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি আহ্বান জানান। এরপরই মালদ্বীপের কয়েকজন নেতা প্রতিক্রিয়ায় বলেন যে, ভ্রমণ গন্তব্য হিসেবে মালদ্বীপের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে কেরালার লাক্ষাদ্বীপকে উপস্থাপনের চেষ্টা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

মালদ্বীপের প্রগ্রেসিভ পার্টির নেতা জাহিদ রামিজ সামাজিক প্ল্যাটফর্ম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে লাক্ষাদ্বীপকে মালদ্বীপের সঙ্গে তুলনা করার পরিকল্পনাকে ‘ভ্রম’ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘আমরা যে পরিষেবা দিই সেটা তারা কীভাবে দেবে? কীভাবে তারা এত পরিষ্কার হতে পারে?’

মালদ্বীপের তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মরিয়ম শিউনা এক্স প্ল্যাটফর্মে একটি অবমাননাকর পোস্ট করে সেখানে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে ‘ইসরায়েলের পুতুল’ বলে উল্লেখ করেছে। তিনি পরবর্তীতে পোস্টটি মুছে ফেললেও এর স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক প্ল্যাটফর্মে। আরও একটি পোস্টে মালদ্বীপে ভারতের সামরিক উপস্থিতির বিরোধিতা করেছিলেন তিনি।

একই ধরনের অবমাননাকর পোস্ট করেছেন ক্ষমতায়ন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মালশা শরীফ এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ মাহজুম মজিদ।

সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি: ভারতকে আর সমুদ্র জরিপের কাজ দেবে না মালদ্বীপসার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি: ভারতকে আর সমুদ্র জরিপের কাজ দেবে না মালদ্বীপ এ ব্যাপারে মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহিম খলিল আজ রোববার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘মন্তব্যের জন্য দায়ী সকল সরকারি কর্মকর্তাকে তাদের পদ থেকে অবিলম্বে বরখাস্ত করা হয়েছে।’ মন্ত্রীদের নাম উল্লেখ না করলেও মালদ্বীপের গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বরখাস্ত হওয়া তিনজন হচ্ছেন মালশা শরীফ, মরিয়ম শিউনা এবং আবদুল্লাহ মাহজুম মজিদ।

এর আগে, আজ সকালে মালদ্বীপ সরকার বলেছে যে, যারা ভারত ও মোদি সম্পর্কে বাজে মন্তব্য করেছেন তাদের মতামত সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে সরকারের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন যে, মালদ্বীপের এসব অবমাননাকর মন্তব্যের বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে ভারত। আর এই ঘটনা ঘটলও এমন এক সময়ে যখন মালদ্বীপের নতুন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ মুইজু মালদ্বীপ থেকে ভারতীয় সেনাদের প্রত্যাহারের জন্য ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। মোহাম্মদ মুইজুকে দেখা হচ্ছে চীনপন্থী হিসেবে।