অবৈধ ভাবে ভারতে পৌষ মেলায় ঘুরতে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির কারাদণ্ড - Southeast Asia Journal

অবৈধ ভাবে ভারতে পৌষ মেলায় ঘুরতে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির কারাদণ্ড

“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে পৌষ মেলায় ঘুরতে গিয়ে বিএসএফের হাতে আটক হলেন ১০ বাংলাদেশি যুবক। পরে তাদের ভারতীয় আদালতে ২৫ দিনের জেল দেয়া হয়। আটককৃতরা হলেন মো. শামসুদ্দিন, আ. সালাম, মো. সুমন, মো. বেলাল, আ. জলিল, আল আমিন, মো. সোহেল, মো. হাসান, মো. ইসমাইল ও মো. রবিউল।

আটকৃতদের বাড়ি রাঙামাটি জেলার লংগদু উপজেলার আটারকছড়া ইউনিয়নে। ত্রিপুরায় পৌষ মেলা উপলক্ষে প্রতিবছর খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি দিয়ে পাহাড় জঙ্গল পাড়ি দিয়ে অনেক বাংলাদেশি মেলায় ঘুরতে যায়। বরাবরের মতো এবারও ঘুরতে গিয়েছিলেন তারা। আর সেখানে আটক হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আটরকছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অজয় চাকমা মিত্র। তিনি জানান, বিনা পাসপোর্টে ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে আমার ইউনিয়নের ১০ যুবককে ভারতীয় আদালতে ২৫ দিনের জেল দেয়া হয়েছে।

এদিকে আটক আল আমিনের ভাই মো. মনির হোসেন বলেন, ত্রিপুরা রাজ্যের গোমতী জেলার তীর্থমুখ এলাকায় গোমতী নদীর উৎসস্থল ডুম্বুর লেকে প্রতিবছর পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে দুই দিনব্যাপী মেলা হয়। সেখানে প্রতি বছর বাংলাদেশ থেকে অনেকেই যায়। সেই মেলা দেখতে শুক্রবার ৩২ জন মিলে আমরাও গিয়েছিলাম।

তিনি আরও জানান, একরাত থাকার পর দুই ভাগে ফেরার পথে ওরা ১০ জন একসঙ্গে ছিল। আমরা বের হতে পারলেও ওরা ১০জন বিএসএফের কাছে ধরা পড়ে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর শনিবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে জানতে পারি বিএসএফ তাদের ধরে পুলিশে দিয়েছে। তারা গন্ডাঝড়া সাব জেলে আছে এখন।

প্রতিবছর রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে, এমনকি বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হিন্দু আদিবাসীরা এ উৎসবে যান। মৃত পূর্ব পুরুষদের উদ্দেশে তর্পণ ও পিন্ডদান করতে পুণ্যার্থীরা এ উৎসবে গিয়ে থাকেন। প্রাচীনকাল থেকে এই প্রথা চলে আসছে। তবে বর্তমানে উৎসবকে কেন্দ্র করে বসে মেলা। তাই পুণ্যার্থীদের পাশাপাশি দর্শনার্থীরাও এখানে ভিড় জমায়। সব মিলিয়ে প্রতি বছর পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে এই উৎসব হয়ে উঠে বৃহৎ মিলন মেলা।