কঙ্গোতে সেনাবাহিনীর আর্মড হেলিকপ্টার ইউনিট মোতায়েন - Southeast Asia Journal

কঙ্গোতে সেনাবাহিনীর আর্মড হেলিকপ্টার ইউনিট মোতায়েন

কঙ্গোতে সেনাবাহিনীর আর্মড হেলিকপ্টার ইউনিট মোতায়েন
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আরও একটি নতুন কন্টিনজেন্ট ‘বাংলাদেশ আর্মড হেলিকপ্টার ইউনিট’র ১ম দল গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রে মোতায়েন হতে যাচ্ছে।

জাতিসংঘ সদর দফতরের আহবানে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এ কন্টিনজেন্টকে প্রস্তুতিমূলক প্রশিক্ষণ শেষে অপারেশনাল এলাকায় নিয়োগের সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে। এই কন্টিনজেন্ট তিনটি অত্যাধুনিক এমআই ১৭১ শাহ হেলিকপ্টার নিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রথম আর্মড হেলিকপ্টার ইউনিট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) এ তথ্য জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, তিন দশকের বেশি সময় ধরে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ছয়টি কন্টিনজেন্ট বর্তমানে কঙ্গো প্রজাতন্ত্রে মোতায়েন রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি এবং আন্তরিক প্রচেষ্টায় মিশন কন্টিনজেন্টগুলোকে অত্যাধুনিক অস্ত্র ও সরঞ্জামাদিতে সজ্জিত করা সম্ভব হয়েছে। সাম্প্রতিককালে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শান্তিরক্ষী মিশনে সার্বোচ্চ পেশাদারিত্ব ও আত্মত্যাগ প্রদর্শনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। পাশাপাশি সেনাবাহিনী প্রধানের অভিজ্ঞ দিক-নির্দেশনা ও সামরিক কূটনীতির ফলে এ ধরণের চ্যালেঞ্জিং মোতায়েন সম্ভবপর হচ্ছে।

আইএসপিআর জানায়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অর্জনের নেপথ্যে রয়েছে সেনাসদস্যদের আন্তরিকতা, নিরলস পরিশ্রম, উন্নত প্রশিক্ষণ ও সরঞ্জাম, ঐকান্তিক প্রচেষ্টা, শৃঙ্খলা, নিয়মানুবর্তিতা ও আত্মত্যাগ। উন্নত পেশাদারিত্ব ও ক্রমাগত সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের অর্জিত সুনাম ও আমাদের পতাকা সমুন্নত রাখতে এবং দেশের সম্মান ও গৌরব বজায় রাখতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সর্বদা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।