মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর ঘাঁটি দখলে নিল কাচিন আর্মি - Southeast Asia Journal

মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর ঘাঁটি দখলে নিল কাচিন আর্মি

মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর ঘাঁটি দখলে নিল কাচিন আর্মি
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

মিয়ানমারের জান্তা সেনাবাহিনীর কৌশলগত একটি ঘাঁটি দখল করেছে কাচিন ইন্ডিপেন্ডেন্স আর্মি (কেআইএ)। কাচিন রাজ্যের হপাকান্ত শহরে বহুমূল্যবান ধাতু জেড খনিতে প্রবেশ পথ নিয়ন্ত্রণকারী ওই ঘাঁটির দখলে নেওয়া হয়। দুই দিন ধরে হামলার পর গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) এর দখলে নেওয়া হয় বলে জানিয়েছে বিদ্রোহী গোষ্ঠীটি। খবর দ্য ইরাবতি।

হপাকান্ত-কামাইং রোডের নামতয়ার গ্রামে ওই ঘাঁটিটি অবস্থিত। সেখানে জান্তা সরকারের সামরিক বাহিনী এবং শান্নি ন্যাশনালিটিস আর্মির (এসএনএ) প্রায় ২০০ সেনা মোতায়েন ছিল।

ইরাবতি’কে গতকাল বৃহস্পতিবার কেআইএ’র মুখপাত্র কর্নেল নাও বু জানিয়েছেন, কাচিন আর্মির সেনারা সকাল ৭টার দিকে জান্তা ঘাঁটির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নেয়। নামতিয়ার গ্রামে একটি চেকপয়েন্ট স্থাপন করা হয়েছিল। এর মাধ্যমে হপাকান্ত-কামাইং রুটে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ করে, যাতে হপাকান্ত শহরের নিয়ন্ত্রণ রক্ষা করা যায়।

কেআইএ মুখপাত্র আরও বলেন, ‘এটি হপাকান্ত শহের প্রবেশের জন্য জান্তা বাহিনীর প্রধান পথ ছিল। এমনকি এটি রুট ব্যবহার করে বেসামরিক নাগরিক ও যানবাহন থেকে অর্থ সংগ্রহ করে প্রচুর আয় করেছে জান্তা সরকার।’

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।

ঘাঁটি রক্ষায় শেষ পর্যন্ত যুদ্ধবিমান ব্যবহার করে জান্তা বাহিনী। বিমান হামলার সময় নামতয়ার গ্রামের কিছু বেসামরিক বাড়িঘর পুড়ে যায়। ঘাঁটি দখল করার সময় কয়েকজন জান্তা সেনাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় কেআইএ। খনিজ সম্পদে ভরপুর এই অঞ্চলটির নিয়ন্ত্রণ রক্ষায় পরিচালিত অভিযানে এই ঘাঁটি জান্তা বাহিনীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।