কানেকটিভিটিতে ভারত-বাংলাদেশ অর্থনীতি ও পর্যটনে গতি : মোদি - Southeast Asia Journal

কানেকটিভিটিতে ভারত-বাংলাদেশ অর্থনীতি ও পর্যটনে গতি : মোদি

কানেকটিভিটিতে ভারত-বাংলাদেশ অর্থনীতি ও পর্যটনে গতি : মোদি
“এখান থেকে শেয়ার করতে পারেন”

Loading

নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশ লাগোয়া ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য সীমান্তের সাবরুমে গতকাল স্থলবন্দর চালু করা হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সকালে অরুণাচল প্রদেশের রাজধানী ইটানগরে আরও বেশ কয়েকটি প্রকল্প উদ্বোধন করার সময় স্থলবন্দরটি উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে কানেকটিভিটি বাড়ানোর ওপর জোর দিয়ে বলেন, এতে করে উভয় দেশের অর্থনীতি ও পর্যটনে গতি সঞ্চারিত হবে। ওই অনুষ্ঠানে সাবরুম আইসিপি থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিকসাহা।

এ নিয়ে তিনি তার এক্স হ্যান্ডেলে লিখেছেন- ‘ত্রিপুরার ক্ষেত্রে আজ এক ঐতিহাসিক দিন। এই নতুন সুবিধা চালু হওয়ার ফলে ত্রিপুরাসহ সমগ্র উত্তর-পূর্ব ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াত, যোগাযোগ, পর্যটন এবং বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে।’ প্রায় ২৩২ কোটি রুপি ব্যয়ে নির্মিত সাবরুম স্থলবন্দর ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যাত্রী ও পণ্য পরিবহনে সহায়ক হবে। এর আগে নরেন্দ্র মোদি গতকাল পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়িতে ৪৫০০ কোটি রুপির সরকারি প্রকল্প উদ্বোধন করেন।

মোদি বলেন, ‘আজ এখানে উন্নয়নমুখী অনেক প্রকল্পের ভিতপাথর স্থাপন হয়েছে। তার মানে উন্নত বাংলার দিকে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আরেকটি নেওয়া হলো পদক্ষেপ।’ শিলিগুড়িকে উত্তর-পূর্ব ভারতের গেটওয়ে আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন ‘উত্তরবঙ্গের এই জায়গাটি (শিলিগুড়ি) উত্তর-পূর্ব ভারতের গেটওয়ে। এই পথ দিয়েই প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য হয়ে থাকে। তাই গত ১০ বছরে পশ্চিমবঙ্গ, বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন করাটাই বিজেপি সরকারের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল।

সুযোগ বৃদ্ধির জন্য বাস্তবায়নকৃত বিভিন্ন প্রকল্পের বর্ণনা দিয়ে মোদি বলেন ‘এখন উত্তরবঙ্গ থেকে বাংলাদেশেও রেল সংযোগ শুরু হয়েছে। নিউ জলপাইগুড়ি থেকে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট পর্যন্ত মিতালী এক্সপ্রেস চলছে।

  • অন্যান্য খবর জানতে এখানে ক্লিক করুন।
  • ফেসবুকে আমাদের ফলো দিয়ে সর্বশেষ সংবাদের সাথে থাকুন।